টক-ঝাল-মিষ্টি আমের আচার

কাঁচা আমের আচার সবারই পছন্দ। আমের আচার দেওয়ার উপযুক্ত সময় এখনই । কাঁচা আম বাজারে পাবেন আর মাত্র কিছুদিন। তাই বানিয়ে ফেলুন কাঁচা আমের কয়েকটি আচার, যা খেতে পারবেন সারাটি বছর।   উপকরণঃ কাঁচা আম ১ কেজি সিরকা আধা কাপ সরিষার তেল এক কাপ রসুনবাটা দুই চা-চামচ  আদাবাটা দুই চা-চামচ হলুদ্গুড়া দুই চা-চামচ চিনি

নতুন বছরের শুভেচ্ছা

রান্নাঘ্র থেকে ের সকল পাঠককে জানানো হচ্ছে শুভেচ্ছা। আশা করি এই বছরটি সবার ভাল কাটবে। এবং সবার রান্নাঘরে ঠিকমত চুলা জ্বলবে।

রান্নাঘরের চুলায় আগুন জ্বলে না।

রান্নাঘরে কোন লেখা নেই। তাহলে কি রান্নাঘরের চুলায় আগুন নেই।

ফুড এটিকেট

খাওয়ার টেবিলে রাঁধুনীর প্রশংসা সবার আগে (এমনকি খাবারটা যদি অতি জঘন্য হয়)।

খাদ্য দিবস

আজ ক্যালিফোর্নিয়া কিউই ফ্রুট দিবস ফলের ছবি দেখুন ফলটা কাটলে যেমন দেখায়

খাদ্য বিষয়ক উক্তি

যখন আমরা হারি, তখনও আমরা খাই, যখন আমরা তখনও আমরা খাই, এমনকি যখন সবকিছু পণ্ড হয়ে যায়, তখনও আমাদের ক্ষুধা লাগে!

টমি লাসারডো (আমেরিকার ডজার বেসবল টিমের ম্যানেজার)

চিংড়ি দিয়ে লাউ শাক

প্রয়োজনীয় উপকরনঃ - লাউশাক (তিনটে ডাটা,কেটে কুটে যা হয়) - কিছু চিড়িং মাছ - মাঝারি দুটো পেঁয়াজ কুঁচি - কয়েকটা কাঁচা মরিচ - এক চা চামচ রসুন বাটা - হাফ চা চামচ হলুদ গুড়া - হাফ চা চামচ মরিচ গুড়া - তেল (পরিমান মত,কম তেলেই রান্না উত্তম) - পানি (পরিমান মত) প্রনালীঃ কড়াইতে তেল গরম করে তাতে সামান্য লবন যোগে পেঁয়াজ কুঁচি এবং

গুড়ের সন্দেশ

ছানা-২ কাপ পাটালি গুড়-১/২ কাপ চিনি-১/২ কাপ কিসমিস-১ চামচ পাতলা সুতির কাপড়-১ টুকরো কীভাবে বানাবেন- ছানা হাতের চাপে একদম গুঁড়ো করে নিতে হবে। ডেকচিতে গুড় দিয়ে নাড়তে থাকুন। গলে গেলে ছানা। কিছুক্ষণ নেড়ে চিনি দিয়ে আঁচ একদম কমিয়ে বারবার অল্প অল্প করে নাড়তে থাকুন। ছানা ডেকচির গা থেকে ছেড়ে আসতে থাকলে বুঝবেন

রান্নাঘর কি ভাবে সাজাবেন -১

আমাদের দেশের যারা রাধুনী তাদের রান্না করতে করতে যান শেষ, তারপরে রান্নারটা যদি গুছিয়ে রাখা যায় তাহলে নিজের কাজের সুবিধাই বেশী। এই বিষয় নিয়ে আমরা ধারাবাহিক আলোচনা করব। তবে তার আগে ঢাকা এবং তার সাথে বাংলাদেশের বাকী বাড়িওয়ালাদের বলব, যখন বাড়া বানাবেন তখন রান্নাঘরটির প্রতি নজর দিন। আমার অভিজ্ঞতা বলে ঢাকা শহরের

শীতকালে হাঁস খাওয়া

শীতকালে হাঁস খাওয়া আর বাঁশ খাওয়া নাকি একই কথা। তবে শীতকালে হাসের মাংস খেতে বেশ মজা। আর দাম ভীষণ চড়া। পটুয়াখালীতে গিয়ে জানলাম এখানে শীতকালে রাজহাঁসের দাম নাকি কখনো ১০০০ টাকাও পড়ে যায়।

যাই হোক হাঁস খাওয়া ভাল, বাঁশ খাওয়া নয়।